ফুটবলে কোন দলের সাপোর্টার বেশি ২০২৩ – ব্রাজিল নাকি আর্জেন্টিনা

4.6/5 - (28 votes)

ফুটবলে কোন দলের সাপোর্টার বেশি – ব্রাজিল নাকি আর্জেন্টিনা ? বাংলাদেশ ক্রিকেট পাগল দেশ হলেও ফুটবলেও যে তারা মেতে থাকে সেটা ফিফা বিশ্বকাপ আসলে দেখতে পাওয়া যায়, বাংলাদেশে ফুটবল মানে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার সাপোর্টারদের দাপট, অন্য দেশের সাপোর্টারও নেহাত কম না কিন্ত ব্রাজিল – আর্জেন্টিনার সাপোর্টার সংখ্যা এতোই বেশি যে বাকিরা সেটাতে ঢাকা পড়ে যায়।

নভেম্বরে শুরু হবে কাতার ফুটবল বিশ্বকাপ, কিন্ত এখন থেকেই ফুটবলের উন্মাদনা ছড়িয়ে পড়েছে বাংলাদেসহ গোটা বিশ্বে, অনেকে প্রশ্ন করতে শুরু করেছেন ফুটবলে কোন দলের সাপোর্টার বেশি, আবার প্রশ্নটা আসে যে বাংলাদেশে ফুটবলে কোন দলের সাপোর্টার বেশি? ফুটবলে কোন দলের সাপোর্টার বেশি

ফুটবলে কোন দলের সাপোর্টার বেশি

বাংলাদেশে মানুষের মাঝে ফুটবল নিয়ে অনেক প্রশ্ন বিশেষ করে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা দ্বৈরথর জন্য, কোন দলের সাপোর্টার বেশি হবে এটা নির্ভার করে সেই দলের সফলতা এবং অর্জনের উপর, যদি হিসাব করা হয় তবে ব্রাজিল সাপোর্টার বেশি, যদিও এটার নিদ্রিষ্ট কোন গননা করা নেই কিন্ত ১৯৫৮ সালে প্রথম বিশ্বকাপ জয়ী দল ব্রাজিল ৫ বার বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন এবং ফুটবলে সর্বচ্চ বিশ্বকাপ জয়ী রেকর্ড তাদের কাছেই, যেটার জন্য বাংলাদেশে ব্রাজিলের জনপ্রিয়তা এবং সাপোর্টার বেশি বর্তমানে ব্রাজিলের জাতীয় ফুটবল দলের সাপোর্টার সংখ্যা ২৩,৭ মিলিয়ন।

ফেসবুক, টুইটার এবং ইস্তাগ্রাম হিসাব করে। অপরদিকে আর্জেন্টিনা ১৯৭৮ সালে প্রথম বিশ্বকাপের স্বাদ পায়, তখন দিয়েগো মারাদোনা এবং ব্রাজিলের পেলের দিয়ে ভাগ হয়ে গেছিলো গোটা বিশ্ব, কেউ মারাদোনার ফুটবলের প্রেমে পড়েছে কেউ আবার পেলের, তবে বর্তমানে আর্জেন্টিনার সাপোর্টার অনেক বেশি পাবার কারণ মেসি অনেকে সেটাই মানেন। তবে অতীত থেকে পারিবারিক ধারাই আর্জেন্টিনা ব্রাজিল বেছে নেওয়ার এই ধারা বর্তমানেও চলে আসছে।

See also  বাংলাদেশ বনাম নিউজিল্যান্ড সিরিজের সময়সূচি ২০২৩ স্কোয়াড; পরিসংখ্যান লাইভ টিভি চ্যানেল

বাংলাদেশে ফুটবলে কোন দলের সাপোর্টার বেশি

বাংলাদেশে ফুটবলে কোন দলের সাপোর্টার বেশি এটা খুঁজে পেতে সহজ কিছু সমকরণ অনুসরন করতে হবে, যদি আপনি ফেসবুকে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা নিয়ে ভোট করেন, এছাড়াও ব্রাজিল বা আর্জেন্টিনার ফেসবুক পেজ, তাদের ইস্তাগ্রাম বা টুইটারে ফলোয়ার সংখ্যা দিয়ে আপনি কোন দেশের সাপোর্টার বেশি এটা বের করতে সক্ষম হবেন। তবে সোশাল প্লাটফর্ম গুলোর হিসাবে ব্রাজিলের জাতীয় ফুটবল দলের সাপোর্টার সংখ্যা ২৩,৭ মিলিয়ন এবং আর্জেন্টিনার ১১.৯ মিলিয়ন সাপোর্টার।

বিশ্বকাপ আসলে প্রতিটি পাড়া মহল্লা ছেয়ে যায় ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার পতাকাতে। নিদ্রিষ্ট ভাবে যদি বলি একটা সফল দলের সাপোর্টার বেশি থাকে আর সেই জাইগাতে আর্জেন্টিনার সাপোর্টার বেশি এদেশে। তার মানে এই না যে ব্রাজিল অনেক পিছিয়ে ১০ জন ফুটবল সাপোর্টারের মাঝে ৭ জন আর্জেন্টিনা ৪ জন ব্রাজিল সাপোর্ট করে।

আর্জেন্টিনা ( ১১.৯ মিলিয়ন সাপোর্টার )

বাংলাদেশে টিম আর্জেন্টিনার জনপ্রিয়তা আকাশ ছোঁয়া, তিন বারের এই বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন দলের খেলা দেখতে এদের মানুষ সারা রাত জেগে থাকতে পারে, একসময় দিয়েগো মারাদোনার আর্জেন্টিনা ছিলো অন্য এক নাম, বর্তমানে লিওনেল মেসির হাত ধরে নতুন জেনারেশন ভালোবাসতে শিখেছে আর্জেন্টিনার ফুটবলকে, বাংলাদেশ, ইন্ডিয়া, পাকিস্থান সব দেশের আর্জেন্টিনার অনেক বড় সাপোর্টার দেখতে পাবেন।

লিওনেল মেসি, দিবালা, দে পল, এঞ্জেল দি মারিয়া, মার্তিনেজ ২০২১ সালে কোপা আমেরিকা জিতল ব্রাজিল কে হারিয়ে আর ২০২২ ফিফা বিশ্বকাপের কথা আর কি বলবো যারা দেখেছেন তারা জানেন। গোটা বিশ্বে ফুটবলে কোন দলের সাপোর্টার বেশি সমিকরণে আর্জেন্টিনার অবস্থান ১ নাম্বারে।

ফেসবুক – ৪.১ মিলিয়ন সাপোর্টার টুইটারে – ৩.৭ মিলিয়ন সাপোর্টার ইস্তাগ্রামে – ৪.১ মিলিয়ন সাপোর্টার। যদিও এসব ফলয়ার বিবেচনায় কোন দলের সাপোর্টার নির্ধারণ করা সম্ভাব না। ফুটবলে অন্য সব দেশের তুলনাই এই ৫ টা দেশের সমর্থক সব থেকে বেশি এর বাইরে যে দল গুলো আছে তাদের মধ্যে, ইতালি, জাপান, স্পেন, পোল্যান্ড অন্যতম।

See also  টি ২০ বিশ্বকাপ কে কতবার নিয়েছে-T20 বিশ্বকাপ জয়ী দলের তালিকা

ব্রাজিল ( ২৩,৭ মিলিয়ন সাপোর্টার )

গোটা বিশ্বের মধ্যে ব্রাজিল দলের সাপোর্টার বেশি, এই দলটার নামের সাথে লেগে আছে ৫ বার বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার খেতাব, এবং ৫ বার কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন তারা। ব্রাজিলের মানুষের কাছে ফুটবল একটা আর্ট এবং এটা তাদের ঐতিহ্য, এই দলটা থেকে, নেইমার, জেসুস, ভিনিসিয়াস জুনিয়ারের মতো ইয়াং ট্যালেন্ট বেরিয়ে আসে।

ব্রাজিল থেকে গ্রেট ফুটবলার জন্ম নেই যেটার জন্য ল্যাতিন আমেরিকার এই দেশটা এখনো বিশ্ব ফুটবলে রাজার মুকুট পরে আছে। তারা ১৯৫৮, সালে প্রথম বিশ্বকাপ জয়ী হয়, এর পর ১৯৫৮,১৯৬২,১৯৭০,১৯৯৪ এবং সর্বশেষ ২০০২ সালে তারা বিশ্বকাপ জেতে। কোপা আমেরিকাতেও ১৯১৯,১৯২২, ১৯৪৯,১৯৮৯, ১৯৯৭, ১৯৯৯, ২০০৪,২০০৭ এবং ২০১৯ সালে চ্যাম্পিয়ন হয় সুতরাং বোঝা যাচ্ছে এই দলটা কতখানি সফল ফুটবলে। ব্রাজিলের জাতীয় ফুটবল দলের সাপোর্টার সংখ্যা ২৩,৭ মিলিয়ন ফেসবুক – ১১.৮ মিলিয়ন লাইক টুইটার – ৪.৬ মিলিয়ন ফলোয়ার ইস্তাগ্রাম – ৭.৩ মিলিয়ন ফলোয়ার।

ফ্রান্স ( ১৮.৬ মিলিয়ন সাপোর্টার )

ফ্রান্স ফুটবল বিশ্বের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন দল, তারা ফুটবলের পরাশক্তি বলা যায়, ইউরোপের দল গুলোর মধ্যে ফ্রান্স প্রথম সারির শক্তিশালি দল, এই দলে জিনেদিন জিদান খেলেছেন, এখন করিম বেনজেমা, কিলিয়ান এমবাপে, পল পগবা, ভারানের মতো নামি দামি ফুটবলার আছে। বাংলাদেশ সহ বিশ্বে ফ্রান্স ফুটবল দলের সমর্থক দ্বিতীয় সর্বচ্চ। ফ্রান্স দুইবার ফিফা বিশ্বকাপ জিতেছে, যেটা তাদের অনেক বড় ফ্যানবেজ বানাতে সহাজ্য করেছে, ফ্যান্স বরবরই গতির ফুটবল খেলে থাকেন, তাদের কাছে বিশ্বের যে কোন দেশই পরাস্ত হতে পারে। ফ্রান্স জাতীয় ফুটবল দলের সাপোর্টার ফেসবুক – ৬ মিলিয়ন লাইক টুইটার – ৭.৮ মিলিয়ন ফলোয়ার ইস্তাগ্রাম – ৪.৮ মিলিয়ন ফলোয়ার।

ইংল্যান্ড ( ১৬.২ মিলিয়ন ফলোয়ার )

বাংলাদেশের মানুষ মনে করে ইংল্যান্ড ফুটবল খেলার জন্ম দিয়েছে,আর এটা সত্যই সেই জন্য গোটা বিশ্বের মধ্যে ফুটবলে তাদের সর্বচ্চো সাপোর্টার আছে, আপনি যদি ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে তাকান তাহলে উত্তর পেয়ে যাবেন, ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ গোটা বিশ্বের মধ্যে সর্বচ্চ জনপ্রিয় লিগ। তাদের দেশের ফুটবল সমর্থন আকাশ ছোয়া বলে এটা সম্ভব হয়েছে। ইংল্যান্ড ১৯৬৬ সালে প্রথম ফিফা বিশ্বকাপ জেতে এর পর আর তাদের শিরোপা ছোঁয়া হয়নি কিন্ত তাদের সাপোর্টার যেভাবে ফুটবলকে ধরে রেখেছে তাদের রীতিতে সেটা সত্যিই বাহবা পাওয়ার দাবিদার।

See also  বিশ্বের সেরা ফুটবলার কে

বর্তমান ইংল্যান্ড দলে হ্যারি কেইন, ফিল ফোডেন, আরো অনেক তারকা ফুটবলার আছে গোটা বিশ্বে ইংল্যান্ড মর্ডান ফুটবলের জনক। ইংল্যান্ড জাতীয় ফুটবল দলের সাপোর্টার বা ফলোয়ার সংখ্যা ফেসবুক – ৭ মিলিয়ন লাইক টুইটার – ৪.১ মিলিয়ন ফলোয়ার ইস্তাগ্রাম – ৫.১ মিলিয়ন ফলোয়ার।

জার্মানি ( ১৩.৫ মিলিয়ন ফলোয়ার )

জার্মানি ফুটবলের প্রধান পরাশক্তি দেশ, তারা মোট ৪ বার বিশ্বকাপ জিতেছে, ১৯৫৪, ১৯৭৪, ১৯৯০, ২০১৪ সালে তারা ফুটবলের সর্বচ্চ সম্মান জয় করেছে, টমাস মুলার, রুডিগার, মানুয়েল নয়ার দিয়ে গড়া বর্তমান জার্মানি আরো বেশি শক্তিশালি দল, ২০২২ সালের কাতার বিশ্বকাপে টপ ফেভারিট দল জার্মানি। বাংলাদেশে জার্মানি ফুটবল দলের অনেক সাপোর্টার আছে, জার্মানি ব্রাজিল ফুটবল দলকে ৭ গোল দিয়ে গুড়িয়ে দিয়েছিলো বিশ্বকাপে। জার্মানি জাতীয় ফুটবল দলের ফলোয়ার সংখ্যা ফেসবুক – ৬.৪ মিলিয়ন লাইক টুইটার – ৩.১ মিলিয়ন ফলোয়ার ইস্তাগ্রাম – ৪ মিলিয়ন ফলোয়ার।

স্পেন

ফুটবলে তৃতীয় সর্বচ্চ জনপ্রিয় ফুটবল সাপোর্টারের দেশ হলো স্পেন, তাদের ফুটবলটা রাজকীয় ভাবে ধারন করা, তাদের জয় গুলো বেশ ধুমধাম ভাবে সেলিব্রেট করে, তারা ২০১০ সালে প্রথম বিশ্বকাপ জেতে এবং প্রতি বিশ্বকাপে তারা সব দেশের জন্য কঠিক প্রতিপক্ষ।

পোল্যান্ড

ইউরোপের ফুটবলে পোল্যান্ড নামটা অনেক বেশি পরিচিত, কারণ তাদের সাপোর্টারদের জন্য, পোল্যান্ড একবারও ফিফা বিশ্বকাপ না জিতলেও তাদের সাপোর্টারদের আগ্রহ এবং উচ্ছ্বাসে পোল্যান্ডকে পরিয়েছে অন্যন্ন এক মুকুট।

ফুটবলে কোন দলের সাপোর্টার বেশি

ফুটবলে আর্জেন্টিনা দলের সাপোর্টার বেশি , ফেসবুক, টুইটার এবং ইস্তাগ্রাম মিলিয়ে তাদের ব্রাজিল ১১.৯ মিলিয়ন সাপোর্টার আছে। আরো

পড়ুন: মেসি রোনালদো পরিসংখ্যান ২০২৩

বাংলাদেশে ফুটবলে কোন দলের সাপোর্টার বেশি

বাংলাদেশে ফুটবলে আর্জেন্টিনা দলের সাপোর্টার বেশি।

বাংলাদেশে আর্জেন্টিনার সাপোর্টার কত ?

আর্জেন্টিনা ১১.৯ মিলিয়ন সাপোর্টার আছে, তবে বাংলাদেশে আর্জেন্টিনার সাপোর্টার সঠিক কোন নেই, বিশ্ব ফুটবলে আর্জেন্টিনার সাপোর্টার র‍্যাংক ৫ নাম্বারে। তবে আর্জেন্টিনার সাপোর্টার বাংলাদেশে সবথেকে বেশি।

সব তথ্য পেতে Google News ফলো করুণ।

Leave a comment