আরলিং হালান্ডের মোট গোল সংখ্যা ( ২০১৬-২০২৩ )

5/5 - (4 votes)

আরলিং হালান্ড ২১শে জুলাই ২০০০ সালে  ইংল্যান্ডের ইংল্যান্ডের লিডসে জন্মগ্রহণ করলেও তার বাবা আলফ হোলান-ও একজন ফুটবল খেলোয়াড় ছিলেন, তার বাবা নরওয়ের হয়ে খেলেছেন সেই সূত্র ধরে তিনিও নরওয়ের হয়ে খেলা শুরু করেন। আজকের নিবন্ধে জানাবো আরলিং হালান্ডের মোট গোল সংখ্যা ক্লাব ও জাতীয় দল নরওয়ের হয়ে মোট গোল এসিস্ট ও সকল পরিসংখ্যান।

আরলিং হালান্ডের মোট গোল সংখ্যা
আরলিং হালান্ড

জাতীয় দলের হয়ে আরলিং হালান্ডের মোট গোল ( নরওয়ে )

০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ সালে জাতীয় দলের হয়ে যাত্রা শুরু করা আরলিং হালান্ড নরওয়ের হয়ে এখনও পর্যন্ত ২৮ ম্যাচ খেলে ২৭ গোল ও ৩ এসিস্ট করেছেন। জাতীয় মূল দলের হয়ে আরলিং হালান্ড এখনও পর্যন্ত কোন লাল কার্ড না পেলেও মাত্র উয়েফা নেশনস লীগে একটি হলুদ কার্ডের দেখা পেয়েছে। জাতীয় দলের হয়ে আরলিং হালান্ডের গোল করার পরিমাণ ৯৬.৪৩%। বিস্তারিত আরও জানতে নিচে দেখুন।

মোট ম্যাচ ২৮
মোট গোল ২৭
মোট এসিস্ট

ব্রাইন এফকের হয়ে আরলিং হালান্ডের মোট গোল ( প্রথম ক্লাব )

নরওয়ে ভিত্তিক ক্লাব ব্রাইন এফকের হয়ে ১৬ই মে ২০১৬ সালে আরলিং হাল্যান্ড তার ক্লাব ক্যারিয়ারের যাত্রা শুরু করে।প্রথম ক্লাবের হয়ে ১৬ ম্যাচ খেললেও একটি গোলও করতে পারেনি। তবে ১৫ বছর বয়সি হাল্যান্ড যে ফুটবলের বড় তারকা হতে যাচ্ছে তা বুঝতে কারো বাকী ছিলো না।

মোট ম্যাচ ১৬
মোট গোল নেই
মোট এসিস্ট নেই

মল্ডে এফকের হয়ে আরলিং হালান্ডের গোল ( দ্বিতীয়  ক্লাব )

পহেলা ফেব্রুয়ারি ২০১৭ সালে প্রথম জানা যাই মল্ডে এফকে আরলিং হালান্ডকে সাইন করিয়েছে। মল্ডে এফকের হয়ে আরলিং হালান্ডের ডেবু হয় ২৬ এপ্রিল ২০১৭ সালে। তার পর থেকে মল্ডে এফকের হয়ে হালান্ড ৫০ ম্যাচ খেলে ২০ গোল ও ৬ এসিস্ট করে মল্ডে এফকে থেকে এফসি রেড বুলে যোগ দেয় চলুন দেখি আসি এফসি রেড বুলের হয়ে হালান্ডের গোল পরিসংখ্যান।

See also  বাজরিগার পাখির ডিম পাড়ার লক্ষণ
মোট ম্যাচ ৫০
মোট গোল ২০
মোট এসিস্ট

রেড বুল এর হয়ে হালান্ডের গোল ( তৃতীয় ক্লাব )

হালান্ডের তৃতীয় ক্লাব অস্ট্রেলিয়ার রেড বুল। এই ক্লাবের হয়ে হালান্ড প্রথমবার মাঠে নামে  ১৭ই ফেব্রুয়ারি ২০১৮ সালে। রেড বুল ক্লাবের হয়ে হালান্ড ২৭ ম্যাচ খেলে ২৯ গোল ৭ এসিস্ট করে দারুণ এক সম্ভাবনার জানান দেয় ফুটবল বিশ্বকে।হালান্ডের ক্লাব ক্যারিয়ারে প্রথম হ্যাট্রিক করেন ১৯ জুলাই ২০১৮ সালে। শুধু মাত্র একটি হ্যাট্রিক নয় রেড বুল ক্লাবের হয়ে হালান্ড ৪ টি হ্যাট্রিক এবং এক ম্যাচে সর্বোচ্চ ৯ গোল করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন তিনি। হালান্ড ৫ মিলিয়ন ইউরোতে এই ক্লাবের হয়ে খেলতেন।

মোট ম্যাচ ২৭
মোট গোল ২৯
মোট এসিস্ট

বরুসিয়া ডর্টমুন্ডর হয়ে হালান্ডের গোল ( চতুর্থ ক্লাব )

রেড বুল ক্লাবের হয়ে দারুণ সাফল্যের পর ২০২০ সালে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডতে যোগ দেয় ৬০ মিলিয়ন ইউরোতে। এই ক্লাবে যোগ দেওয়ার আগে হালান্ডের আরেক নাম গোল ম্যাশিন নামেও পরিচিত পেতে থাকে। ২০২০/২১ সিজনে হালান্ড জার্মান কাপ জয়ী সহ নানা অর্জন তাকে সেরা দের সেরা হওয়ার তব্র ইচ্ছা তাকে সেরা করে তোলে। বরুসিয়া ডর্টমুন্ডর হয়ে হালান্ড ২ সিজন  খেলে ৮৯ ম্যাচ খেলে ৮৬ গোল ও ২৩ এসিস্ট করেন। কোন লাল কার্ড না পেলেও ৮ বার হলুদ কার্ডের দেখা পায়।

মোট ম্যাচ ৮৯
মোট গোল ৮৬
মোট এসিস্ট ২৩

ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে হালান্ডের মোট গোল ( বর্তমান ক্লাব )

ক্ষুদ্র এই ক্লাব ক্যারিয়ারে হালান্ড ইতিমধ্যে ৪ ক্লাব পরে পঞ্চম ক্লাবে যোগ দিয়েছে। ম্যানচেস্টার সিটিতে সাইন করে ১০ মে, ২০২২ সালে ১৭০ মিলিয়ন ইউরোতে। তবে পরবর্তী বছরে তা বাড়িয়ে ১৮০ মিলিয়ন ইউরো তে করা হয়। বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক ১৮০ মিলিয়ন ইউরো হালান্ড ছাড়া আরও এক ফারাসি তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পেরও মার্কেট ভেলু একই। ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে আরলিং হালান্ড ৭১ ম্যাচে ৬৯ গোল ও ১৩ এসিস্ট করেছেন। সেই হিসাবে হালান্ডের গোল করার সম্ভাবনা ছিলো  ৯৭.১৯%। ক্লাব ও জাতীয় দলে কোন ম্যাচে লাল কার্ড না পেলেও ২৪ বার হলুদ কার্ডের দেখা পেয়েছে হালান্ড।

See also  বাজরিগার পাখি ডিম পাড়ার পর করনীয়
মোট ম্যাচ ৭১
মোট গোল ৬৯
মোট এসিস্ট ১৩

আরলিং হালান্ডের মোট গোল সংখ্যা ক্লাব+জাতীয় দল

জাতীয় দল নরওয়ে ও ৫ ক্লাব সহ সর্বমোট ২৮১ ম্যাচ খেলে আরলিং হালান্ড ২৩১ গোল ৫২ এসিস্ট করেছে। ক্লাব ও জাতীয় দলে কোন প্রকার লাল কার্ডের দেখা না পেলেও ২৪ বার হলুদ কার্ড দেখেছেন নরওয়ের গোল ম্যাশিন খ্যাঁত হালান্ড। চলুন দেখে আসি তার বর্ণময় ক্যারিয়ারের সকল পরিসংখ্যান।

ক্লাব/জাতীয় দল ম্যাচ গোল এসিস্ট হলুদ কার্ড
নরওয়ে ২৮ ২৭
ব্রাইন এফকে ১৬ নেই নেই নেই
মল্ডে এফকে ৫০ ২০
রেড বুল ২৭ ২৯
বরুসিয়া ডর্টমুন্ড ৮৯ ৮৬ ২৩
ম্যানচেস্টার সিটি ৭১ ৬৯ ১৩
সর্বমোট ২৮১ ২৩১ ৫২ ২৪

অল্প কিছুদিনের মধ্যে ফুটবল জগতকে রঙিন করার কারনে ২০২৩ সালে ব্যালন ডি অর জয়ী তালিকায় লিওনেল মেসির মত বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়ের সাথে তাকে রাখা হয়েছিলো। যদিও মেসি না থাকলে হয়তো এই সেরা পুরষ্কার তার হাতেই দেখা যেত।

(আপনি সব খবর প্রতি মুহূর্তে পেতে ফলো করুন আমাদের Google News পেজ)

Leave a comment